সিভিল পিটিশন ড্রাফটিং

By:

Format

হার্ডকভার

Country

বাংলাদেশ

212

1 in stock

“সিভিল পিটিশন ড্রাফটিং” বইটির ‘ছােট দুইটি কথা’ অংশ থেকে নেয়াঃ
দেওয়ানী কার্যবিধি আইন ১৯০৮। এই আইনটি বৃটিশ সরকার প্রণয়ন করিয়া গিয়াছেন তাহাও আজ প্রায় শত বৎসর ঊর্ধ্বকাল অতিক্রান্ত। কেহ যদি মনে করেন শত বৎসর পূর্বের এই পুরনাে আইন এখন আর চলে না। এই কথাটি দেওয়ানী কার্যবিধি আইনের ক্ষেত্রে কখনই প্রযােজ্য হইবে না। ইহা এমন একটি কার্যপদ্ধতি আইন যাহা যুগ যুগ ধরিয়া চলিতে থাকিবে। মােটকথা দেওয়ানী কার্যবিধি আইন ইহা একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং অতি চমৎকার আইন। আমাদের দেশে বিশেষ আইন বলেন অথবা যে কোন আইনই প্রণয়ন করা হউক না কেন তাহা ফৌজদারী কার্যবিধি এবং দেওয়ানী কার্যবিধিকে অনুসরণ করিয়াই করা হয়। দেওয়ানী কার্যবিধি আইনে ১৯৮৩ সন হইতে ২০১২ সন পর্যন্ত মাঝে মাঝে কোন কোন ক্ষেত্রে আদেশ এর কোন রুল বা বিধির সংশােধন করা হইয়াছে। একটি মােকদ্দমার উদ্ভব হয় Substantive Law হইতে আর মামলা Filing হইতে শুরু করিয়া সাক্ষী হইয়া যুক্তিতর্কের মধ্য দিয়া রায় ডিক্রির মাধ্যমে নিষ্পত্তি হয় procidural law অনুসারে।
আর দেওয়ানী কার্যবিধি আইনটি হইতেছে একটি procidural law. দেওয়ানী কার্যবিধি আইনে সর্বমােট ১৫৮টি ধারা রহিয়াছে। তন্মধ্যে দুই একটি ধারা বাতিল হইয়াছে এবং সর্বমােট ৫১টি আদেশ রহিয়াছে। প্রতিটি আদেশের মধ্যে অনেকগুলাে বিধি ও উপ-বিধি রহিয়াছে। মােকদ্দমা পরিচালনার ক্ষেত্রে কিছু কিছু আদেশ ও বিধি আছে যাহা প্রায় সব সময় কিংবা প্রায় সময়ই দরকার হইয়া পড়ে। সেইসব আদেশ ও বিধিকে বাছাই করিয়া বিষয়ভিত্তিক করিয়া সাজাইয়া বইটির মধ্যে সংকলন করা হইয়াছে।
Writer

Publisher

ISBN

9847024100932

Genre

Pages

184

Published

2nd Published, 2023

Language

বাংলা

Country

বাংলাদেশ

Format

হার্ডকভার